ইউকে মঙ্গলবার, ১৭ মে ২০২২
হেডলাইন

দৃষ্টিনন্দন আলিশান মসজিদ নির্মাণ, কিছু অপ্রিয় কথা


◾️আ. ফ. ম. সাঈদ◾️

ইদানীং একটি হুজুগ বেশি করে দেখা দিয়েছে। কোটি কোটি টাকা ব্যয়ে কারুকার্য খচিত দৃষ্টিনন্দন মসজিদ নির্মাণের হুজুগ। কয়েক দিন আগে এক সাবেক চিত্রনায়িকা তার মায়ের নামে কয়েক কোটি টাকা দিয়ে একটি মসজিদ বানিয়েছেন। প্রয়োজন না থাকলেও কোনো কোনো স্থানে পুরানো মসজিদ ভেঙে সুন্দর করে নতুন মসজিদ বানানো হয়।

মসজিদ আল্লাহর ঘর, নামাজের স্থান। দৃষ্টিনন্দন-আলিশান মসজিদ নির্মাণে প্রতিযোগিতার কোনো অবকাশ নেই। মুসল্লিতে পরিপূর্ণ হওয়াই মসজিদের প্রকৃত সৌন্দর্য। অনেক মসজিদে শুধু শুক্রবার জুমুআর নামাজ ছাড়া অন্যান্য নামাজে তিন কাতারও হয় না। তাহলে এত বড়ো আর সুন্দর মসজিদ বানিয়ে কী লাভ হলো? লাভ শুধু এই যে, মানুষ মসজিদ দেখতে আসে আর বাহবা দেয়। কিন্তু মসজিদ তো দর্শনীয় স্থান হওয়ার কথা নয়। পাঁচ ওয়াক্তের নামাজে মুসল্লিতে ভরপুর হওয়াই মসজিদের হক।

হাদিসে আছে, নবি কারিম সা. বলেছেন, কিয়ামত যত নিকটবর্তী হবে, সুন্দর-আলিশান মসজিদ নির্মাণের হিড়িক শুরু হবে।

আমরা কি এই যুগে পড়েছি?

কোটি টাকা ব্যয়ে মসজিদ বানানো হলেও ইমাম ও মুয়াজ্জিনদের যথাযথ সম্মানী দেওয়া হয় না অনেক স্থানে। তাদেরকে সন্তোষজনক সম্মানী দিতে টাকার অভাব দেখা দেয়!

এদেশে লাখ লাখ মানুষ মারাত্মক আর্থিক অনটনে আছে। ঠিকমতো দুই বেলা খেতে পারে না, অসুখ হলে ওষুধ কিনতে পারে না। থাকার জন্য ভালো ঘর নেই। যারা কোটি কোটি টাকা ব্যয়ে আধুনিক স্থাপত্যে সুন্দর মসজিদ নির্মাণ করেন, তারা ভাগ্যাহত ওই সব মানুষের কথা কখনো কি ভাবেন?

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন :

‘মুক্তমত’ বিভাগে প্রকাশিত মতামত ও লেখার দায় লেখকের একান্তই নিজস্ব। ‘ইউকে বাংলা অনলাইন ডট কম’ সকল মতাদর্শের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তবে ‘মুক্তমত’ বিভাগে প্রকাশিত লেখার দায় ‘ইউকে বাংলা অনলাইন ডট কম’ এর নয়। - সম্পাদক

সর্বশেষ সংবাদ

ukbanglaonline.com