ইউকে মঙ্গলবার, ১৭ মে ২০২২
হেডলাইন

ডায়রিয়া প্রতিরোধে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের পরামর্শ

ডায়রিয়া প্রতিরোধে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের পরামর্শ

 

ইউকে বাংলা অনলাইন ডেস্ক :  রাজধানী ও এর আশপাশের কয়েকটি এলাকায় ডায়রিয়ার প্রকোপ রেকর্ড ছাড়িয়ে যাচ্ছে। গত ৬০ বছরের মধ্যে যা সবচেয়ে বেশি। গত মঙ্গলবার আইসিডিডিআরবির ইতিহাসে সর্বোচ্চ এক হাজার ২৭২ জন রোগী ভর্তি হয়েছে। এ সংখ্যা কিছুটা কমলেও তা হাজারের নিচে নামেনি।

এ অবস্থায় ডায়রিয়া থেকে বাঁচতে সচেতন হওয়ার পরামর্শ দিয়েছে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর। রবিবার (২৭ মার্চ) দুপুরে দেশের করোনা পরিস্থিতি নিয়ে নিয়মিত স্বাস্থ্য বুলেটিনে এ সতর্কতার কথা বলা হয়। একই সঙ্গে ডায়রিয়া পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে স্বাস্থ্য বিভাগ সচেতন রয়েছে বলেও জানানো হয়েছে।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের সংক্রামক ব্যাধি নিয়ন্ত্রণ শাখার লাইন ডিরেক্টর অধ্যাপক ডা. মো. নাজমুল ইসলাম বুলেটিনে ডায়রিয়া সম্পর্কে আলাদা করে বক্তব্য রাখেন। তিনি বলেন, দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে ডায়রিয়া রোগের প্রকোপ বাড়ার তথ্য পাওয়া যাচ্ছে। বিশেষ করে রাজধানী ঢাকায় ডায়রিয়া আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা বেড়েছে।

ডা. নাজমুল ইসলাম বলেন, প্রতিদিনকার কাজকর্মে বিশুদ্ধ পানি ব্যবহার করলে, স্বাস্থ্যবিধি মেনে চললে এবং সব সময় সুপেয় পানি পান করলে ডায়রিয়া থেকে মুক্ত থাকা সম্ভব।

সরকারি হাসপাতালগুলোতে খাবার স্যালাইন, আইভি ফ্লুইড স্যালাইন, পানি বিশুদ্ধীকরণ ট্যাবলেট এবং অন্যান্য প্রয়োজনীয় উপকরণের সরবরাহ রয়েছে বলে জানানো হয়েছে বুলেটিনে। অল্প ডায়রিয়া থাকতেই চিকিৎসকের পরামর্শ গ্রহণ করতে হবে। সচেতনতা বৃদ্ধির মাধ্যমে এ রোগ নিয়ন্ত্রণ সম্ভব।

আইসিডিডিআরবি সূত্র বলছে, সারা বছর দৈনিক ৪০০ থেকে ৫০০ ডায়রিয়া রোগী এই হাসপাতালে চিকিৎসা নিতে আসে। বর্ষা মৌসুম শুরু হওয়ার আগে রোগীর সংখ্যা কিছু বাড়ে। সাধারণত মার্চ মাসের শেষ সপ্তাহে রোগীর সংখ্যা দ্রুত বাড়তে থাকে। এপ্রিলের মাঝামাঝি সময় থেকে শেষ সপ্তাহে রোগী চূড়ান্তভাবে বাড়ে। কিন্তু এ বছর ব্যতিক্রম দেখা যাচ্ছে।

 

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন :

সর্বশেষ সংবাদ

ukbanglaonline.com