ইউকে বুধবার, ২৭ অক্টোবর ২০২১
হেডলাইন

দক্ষিণ সুরমায় কপাট খুলল শেখ হাসিনা শিশু পার্কের

দক্ষিণ সুরমায় কপাট খুলল শেখ হাসিনা শিশু পার্কের

সিলেট সংবাদদাতা :  নামকরণ জটিলতায় এতোদিন আলোর মুখ না দেখলেও এবার ঘুরলো বিভিন্ন রাইড। সেই সাথে কপাট খুলল সিলেটের দক্ষিণ সুরমার আলমপুর এলাকায় সুরমা নদীর পাড় ঘেঁষা শিশু পার্কের।

‘জননেত্রী শেখ হাসিনা শিশু পার্ক’ নামে শনিবার (২৫ সেপ্টেম্বর) দুপুর ১টায় সিলেট সিটি করপোরেশন কর্তৃপক্ষ পার্কটি পরীক্ষামূলকভাবে চালু করেছে।

এসময় সিলেট সিটি করপোরেশনের প্রধান প্রকৌশলী নূর আজিজুর রহমানসহ স্থানীয় কাউন্সিলরবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

তবে পরীক্ষামূলক চালু হলেও কয়েকদিন এভাবেই চালু থাকবে বলে জানিয়েছেন সংশ্লিষ্টরা। এ সময়ে প্রাপ্ত বয়স্করা ২০ টাকা ও শিশুরা ১০ টাকা মূল্যে প্রবেশ করতে পারবেন। পার্কের ভেতরে ঢুকে শিশুরা ১০ টাকা মূল্যে চড়তে পারবেন যে কোন রাইড।

 

এদিকে শনিবার বিকালে সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায় প্রথম দিনই পার্কের ভেতর ভিড় করছেন বিনোদনপ্রেমীরা। শিশুদের আনাগোনায় সরব হয়ে উঠেছে পার্কটি। তাইতো বিনোদনের নতুন দ্বার খোলায় খুশি স্থানীয়রাও।

প্রথম দিন বিকালে দুই সন্তান নিয়ে এসেছেন কুচাই এলাকার আব্দুল কাইয়ুম। তিনি বলেন, বর্তমানে শিশুদের বিনোদনের জায়গার খুব অভাব। দীর্ঘদিন থেকে এ পার্কটি হচ্ছে, হবে বলে পড়ে থাকলেও আজ প্রথম দিন চালু হচ্ছে শোনে আমার দুই ছেলেকে নিয়ে আসলাম। তারা বেশ উপভোগ করেছে। বাবা হিসেবে ব্যাপারটা আমার খুব ভালো লেগেছে।

অপরদিকে পার্ক ঘুরে দেখা যায়, চার পাশে শিশুদের চড়ার উপযোগী রেলগাড়ি, স্লিপার, সসরাইড, বোট, হানি, সুইং, নাগরদোলাসহ বেশ কিছু রাইড বসানো হয়েছে। আর এসব রাইডে চড়ছেন শিশুরা। যেন তাদের আনন্দের শেষ নেই।

তবে দীর্ঘ ১৫ বছর আগে পার্কটির কাজ শুরু হলেও বারবার অজ্ঞাত কারণে থমকে গেছে। প্রথমে এ পার্কের কাজ শুরু হয় ২০০৬ সালে। সে সময় প্রায় ৫ কোটি টাকা ব্যয়ে দক্ষিণ সুরমার আলমপুরে ৩.৪৪ একর ভূমির উপর শিশু পার্ক নির্মাণের কাজ শুরু হয়। মাটি ভরাট করে সীমানা প্রাচীর নির্মাণ, পার্কের অবকাঠামোগণ সব কাজ শেষ হয় ২০০৯ সালে। নামকরণ নিয়ে জটিলতার কারণে এরপর প্রায় ৮ বছর পরিত্যক্ত অবস্থায় পড়ে ছিলো পার্কটি। এই সময়ে জঙ্গল আর আবর্জনার ভাগাড়ে পরিণত হয় পুরো পার্ক। পরে আবার ২০১৭ সালে প্রায় ১৫ কোটি টাকা ব্যয়ে ১৫টি রাইড বসানোর কাজ শুরু হয়। এভাবে বারবার হুঁচট খেতে খেতে অবশেষে আলোর মুখ দেখে পার্কটি।

 

এমনকি শুরুতে সাবেক অর্থমন্ত্রী এম সাইফুর রহমানের নামে পার্কটি নামকরণের জন্য স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়ে প্রস্তাব পাঠালে এতে রাজী হয়নি মন্ত্রণালয়। এরপর স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতাদের পক্ষ থেকে পার্কটি শেখ হাসিনার নামে নামকরণের দাবি জানানো হয়। পরবর্তীতে সিটি করপোরেশনের পক্ষ থেকে ‘সিলেট ন্যাচারাল পার্ক’, ‘দক্ষিণ সুরমা পার্ক’ নামে নামকরণের চেষ্টা চালানো হয়। তবে শেষ পর্যন্ত ‘জননেত্রী শেখ হাসিনা শিশু পার্ক’ নামেই এই পার্কের নামকরণ করা হয়।

দুপুরে পার্ক চালু করার সময় সিসিকের প্রধান প্রকৌশলী মো. নূর আজিজুর রহমান সাংবাদিকদের জানান, পরীক্ষামূলকভাবে পার্কটি চালু করা হয়েছে। আপাতত কিছুদিন এভাবেই চলবে। আশা করছি অল্পদিনের ভেতরেই আনুষ্ঠানিক উদ্বোধনের মাধ্যমে পুরোদমে চালু করা হবে পার্কটি।

প্রধানমন্ত্রীর নামে এ পার্ক পররাষ্ট্রমন্ত্রী ও সিলেট-১ আসনের সাংসদ ড.এ.কে. আব্দুল মোমেনের উদ্বোধনের কথা রয়েছে বলে জানান তিনি।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন :

সর্বশেষ সংবাদ

ukbanglaonline.com