ইউকে সোমবার, ২ আগস্ট ২০২১
হেডলাইন

তালেবানের ভয়ে এবার দেশ ছাড়ছে আফগানরা

তালেবানের ভয়ে এবার দেশ ছাড়ছে আফগানরা

তালেবানের ভয়ে এবার দেশ ছাড়ছে আফগানরা

ইউকে বাংলা অনলাইন ডেস্ক : কদিন থেকে তালেবানের সঙ্গে আফগান নিরাপত্তা বাহিনীর তুমুল সংঘর্ষ চলছে। এমন বাস্তবতায় প্রাণে বাঁচতে সীমান্তবর্তী দেশে পালিয়ে যাচ্ছে আফগানিস্তানের সাধারণ মানুষ।

এর আগে পাকিস্তানে যেতে চাইলে বর্ডার ক্রসিংয়ে দেশটির পুলিশ তাদের লক্ষ্য করে কাঁদানে গ্যাস ছোড়ে। আরেক সীমান্তবর্তী দেশ তুরস্কে আফগানরা কোনোমতে পৌঁছতে পারলে সেখানেও তাদের কারাগারে আটক করা হচ্ছে।

আফগানিস্তানে চলমান সহিংসতার মধ্যে দক্ষিণাঞ্চলীয় ইরান সীমান্তের কাছে গত দুই দিনে নথিপত্রবিহীন ১৩২ আফগানকে আটক করে তুরস্ক।

তুরস্কের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তারা রোববার এসব তথ্য জানান বলে বার্তা সংস্থা রয়টার্সের প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে।

পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তারা জানান, শনিবার তুরস্কের পূর্বাঞ্চলীয় কুর্দি সংখ্যাগরিষ্ঠ ভ্যান প্রদেশে আফগানিস্তানের ৭৩ নাগরিককে আটক করা হয়। পরের দিন রোববার ভ্যান প্রদেশের এরসিস জেলা থেকে আরও ৬০ জনকে আটক করা হয়। তাদের মধ্যে ৫৯ জনই আফগান।

যুক্তরাষ্ট্রসহ সামরিক জোট ন্যাটোভুক্ত দেশগুলো আফগানিস্তান থেকে তাদের সেনা প্রত্যাহারের শেষ পর্যায়ে রয়েছে। এছাড়া চলতি বছরের ৩১ আগস্টের মধ্যে নিজেদের সব সেনা সরানোর ঘোষণা দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র।

বিদেশি সব সেনা আফগানিস্তান ছাড়ার মধ্যেই দেশটির বিভিন্ন অঞ্চল দখলে সশস্ত্র লড়াই শুরু করে তালেবান। আফগান সেনাবাহিনীর সঙ্গে প্রায় প্রতিদিনই তাদের সংঘর্ষ বাধছে।

এমন পরিস্থিতিতে আফগানরা নিজেদের দেশ ছেড়ে তুরস্কে চলে যেতে পারে বলে গত কয়েক দিন ধরে আশঙ্কা করা হচ্ছিল।

জাতিসংঘের শরণার্থী সংস্থা বলছে, চলতি বছরের জানুয়ারি থেকে আফগানিস্তানের ভেতরেই প্রায় ২ লাখ ৭০ হাজার মানুষ বাস্তুচ্যুত হয়েছে। এর মধ্য দিয়ে দেশটিতে বাস্তুচ্যুত মানুষের সংখ্যা দাঁড়াল ৩৫ লাখের বেশি। গত মাসে তুরস্কের দক্ষিণাঞ্চলে নিরাপত্তা ও অভিবাসন নিয়ে বৈঠকে বসেন তুরস্ক, আফগানিস্তান ও ইরানের পররাষ্ট্রমন্ত্রীরা।

তুরস্কের কূটনৈতিক সূত্র সে সময় জানিয়েছিল, আফগানিস্তানের শরণার্থীর বিষয়ে ইরান ও তুরস্কের নির্দিষ্ট কোনো পরিকল্পনা নেই।

এ মুহূর্তে চার লাখের বেশি শরণার্থী তুরস্কে অবস্থান করছে, যাদের বেশির ভাগই সিরিয়ান।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন :

সর্বশেষ সংবাদ

ukbanglaonline.com