ইউকে মঙ্গলবার, ১৩ এপ্রিল ২০২১
হেডলাইন

অস্ট্রেলিয়ায় নতুন আইন, সমস্যায় গুগল-ফেসবুক

 

ইউকে বাংলা অনলাইন ডেস্ক :  গুগল-ফেসবুককে সংবাদের জন্য সংবাদ সংস্থাকে অর্থ দিতে হবে। নতুন আইন পাশ হলো অস্ট্রেলিয়ার পার্লামেন্টে।

বিতর্ক চলছিল অনেক দিন ধরেই। কিন্তু সেই তর্ক উপেক্ষা করেই নতুন আইন পাশ করল অস্ট্রেলিয়ার পার্লামেন্ট। সুদূরপ্রসারী সেই আইন দেশের ঐতিহ্যবাহী সংবাদমাধ্যমগুলিকে টিকিয়ে রাখতে সাহায্য করবে বলে সরকারের বক্তব্য। পাশাপাশি সত্যনিষ্ঠ খবরের প্রতিও দায়বদ্ধ থাকা যাবে বলে সরকার মনে করছে।

নতুন আইনে গুগল, ফেসবুকের মতো প্ল্যাটফর্মগুলিকে স্থানীয় সংবাদসংস্থাকে অর্থ দিতে হবে বলে বলা হয়েছে। অর্থাৎ, গুগল বা ফেসবুক তাদের ‘নিউজ’ প্ল্যাটফর্মে যে খবরগুলি রাখবে, তার জন্য ওই নির্দিষ্ট সংবাদসংস্থাকে অর্থ দিতে হবে।

গুগল একটি সার্চ ইঞ্জিন। যে কোনো খবর, যা ডিজিটল মাধ্যমে আছে, গুগল সেই খবরটি সার্চ করে পাঠকের সামনে তুলে ধরে। এবং ওই সংবাদ গুগলের প্ল্যাটফর্মে থেকে যায়। সংবাদটি যদি অতিপাঠ্য হয়, তখন সেই সংবাদের জন্য গুগল বিজ্ঞাপন পেতে শুরু করে। বড় বড় সংস্থা গুগলকে ওই সংবাদ কনটেন্টটির জন্য বিজ্ঞাপন দেয়। ফেসবুকে বিষয়টি আরো সহজ। এই সোশ্যাল মিডিয়া প্ল্যাটফর্ম তাদের নেটওয়ার্কে যে খবরগুলি থাকে, তার জন্য বিজ্ঞাপন সংগ্রহ করে। যে বিজ্ঞাপন তারা পায়, তার লাভ্যাংশ সংবাদসংস্থাটিকে দেওয়া হয় না।

১৬টি ডিজিটাল মিডিয়া স্টার্টআপের একটি দল গণমাধ্যমের কার্যকারিতা নিয়ে কাজ করছে। তারা জবাব দিচ্ছে: তাদের দেশে গণমাধ্যমের কার্যকারিতার ক্ষেত্রে কি কি চ্যালেঞ্জের মুখোমুখি হতে হয়?

এই চিরাচরিত নিয়মটিকেই ভেঙে দিয়েছে অস্ট্রেলিয়ার নতুন আইন। অস্ট্রেলিয়ার আইন বলছে, কোনো সংবাদসংস্থার নিউজ কনটেন্ট তাদের প্ল্যাটফর্মে রাখলে, তার জন্য অর্থ দিতে হবে গুগল এবং ফেসবুককে। কারণ, তারা ওই সংবাদ থেকে অর্থ রোজগার করছে। যার লাভ্যাংশ সংবাদ সংস্থাটিরও প্রাপ্য।

প্রথম থেকেই এই আইনের বিরোধিতা করছে গুগল এবং ফেসবুক। সম্প্রতি প্রতীকী ভাবে ফেসবুক অস্ট্রেলিয়ায় তাদের পেজ থেকে সমস্ত সংবাদ তুলে নিয়েছিল। যা নিয়ে দেশ জুড়ে রীতিমতো আলোচনাও হয়েছিল। পরে অবশ্য ফেসবুক ফের পেজে সংবাদ ফিরিয়ে আনে। গুগলও হুমকি দিয়ে রেখেছে, এই আইন চালু হলে তারা অস্ট্রেলিয়া থেকে তাদের প্রাথমিক সার্চ ইঞ্জিন তুলে নেবে।

আইনে অবশ্য বলা আছে, সংবাদ সংস্থার সঙ্গে আদালতের বাইরেও বোঝাপড়া করে নিতে পারবে ডিজিটল প্ল্যাটফর্মগুলি। মধ্যস্থতাকারীর মাধ্যমে এ কাজ করা যাবে। হুমকি দিলেও গুগল এবং ফেসবুক ইতিমধ্যেই অস্ট্রেলিয়ার বেশ কিছু সংবাদসংস্থা এবং সংবাদ গ্রুপের সঙ্গে আর্থিক লেনদেনের আলোচনা শুরু করেছে বলে জানা গেছে।

ডিজিটল সংবাদমাধ্যমগুলি ভালো কনটেন্ট তৈরি করেও বিজ্ঞাপন পায় না। বেশ কিছুদিন ধরেই এই বিষয়টি নিয়ে বিশ্বে আলোচনা হচ্ছে। যে মডেলে ডিজিটল প্ল্যাটফর্মগুলি চলে তা নিয়েও বহু কথা হচ্ছে। দেখা যায়, ডিজিটল মিডিয়ার ভালো কনটেন্ট থেকে গুগল, ফেসবুক রোজগার করছে। কারণ, তারা বিজ্ঞাপন পাচ্ছে। অথচ সেই কনটেন্টের জন্য সংবাদমাধ্যমের পেজটিতে কেউ বিজ্ঞাপন দিচ্ছে না। অস্ট্রেলিয়ার নতুন আইন সেই সমস্যা অনেকটাই দূর করবে বলে বিশেষজ্ঞরা মনে করছেন। একই সঙ্গে ফেক বা ভূয়া নিউজের উপরেও এর ফলে নিয়ন্ত্রণ আসবে বলে অনেকের ধারণা। সূত্র: ডয়েচে ভেলে।

 

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন :

সর্বশেষ সংবাদ

ukbanglaonline.com